• শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১০:০১ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

করোনাঃ শুনতে কি পাও নিন্ম মধ্যবিত্তের কান্না?

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২ এপ্রিল, ২০২০

বর্তমান বিশ্বের এক মহামারি আতংকের নাম করোনাভাইরাস। চিনের উহানে এর উৎপত্তি হলেও বিশ্বের প্রায় সকল দেশেই এর বিস্তার হয়ে গেছে এখন। যার ফলে প্রতি মিনিটেই প্রান হারাচ্ছেন দুইজন মানুষ। এখন পর্যন্ত প্রান হারিয়েছেন ৪৭ হাজারের বেশি মানুষ। আর আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৯ লাখের বেশি মানুষ।

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ জন যার মধ্যে ৬ জন নিহত হয়েছেন। এরই মধ্যে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশ লকডাউন করে রেখেছেন। বাংলাদেশ ও প্রায় লকডাউন। ইতিমধ্যে সরকার আগামী ১১ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারী বেসরকারি সকল অফিস বন্ধ ঘোষণা করছেন এবং সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১১এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

গতকাল রাতে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে করোনা মোকাবিলায় বাহিরে অবাধে ঘুরাঘুরি বন্ধে সেনাবাহিনী কঠোর ভূমিকা পালন করবে। এরই সাথে গতকাল থেকেই পুলিশ আগের চেয়ে কঠোর ভূমিকা পালন করছে বাহিরে অবাধে ঘুরাঘুরি বন্ধে।

করোনা মোকাবিলায় সমাজের বৃত্তবানরা অনেকেই অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষদের পাশে দাড়াতে দেখা গেছে। সরকারের পক্ষ থেকেও হতদরিদ্রদের জন্য বড় আকারের সাহায্য ঘোষণা করা হয়েছে। যাদের সামর্থ আছে তারা তাদের চলারমত করে বাজার করে রেখেছেন কিংবা সঞ্চিত টাকা থেকে প্রতিনিয়ত ভালোভাবেই চলার চেষ্টা করছেন। এই দুই শ্রেনীর মাঝে একটা শ্রেণির বাস যাদের আমরা মধ্যবিত্ত এবং নিন্ম মধ্যবিত্ত বলে থাকি। তাদের সময়টা যাচ্ছে খুবই করুন। তারা সাধারণত কারো কাছেই হাত পাততে অভ্যস্ত নয়। সমাজের নানান অসংগতির কথা চিন্তা করে অনেকসময় তারা না খেয়ে থাকলেও কাউকেই বলতে পারেনা কিংবা লাজলজ্জার ভয়ে বলেন না।

করোনার এই মহামারী পরিস্থিতিতে এসব নিন্ম মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত মানুষগুলোর পাশে না থাকে সরকার এবং না থাকে সমাজের বিত্তশালীরা। তাদের কান্নার আওয়াজ ঘরের বাহিরেও যায়না। ডুকরে ডুকরে কান্না করা ছাড়া তাদের কিছুই করার থাকেনা। করোনার প্রভাবে যেভাবে দেশে লকডাউন শুরু হয়েছে পরিস্থিতি হয়তো একদিন অনূকূলে আসবে কিন্তু ততোদিনে অনেক নিন্মমধ্যবিত্তরা হয়তো করোনায় না মারা গেলেও শেষ হয়ে যাবে ক্ষুধার তাড়নায়। হয়তোবা নিন্মজ্জিত হবে গলা পরিমান ঋণের বোঝায়।

লেখকঃ নাঈম সজল, সম্পাদক, সময় এক্সপ্রেস নিউজ

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/