• শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:৫৭ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
সালাউদ্দিন কে সরাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়! জনতার রাজনীতির এক যোদ্ধার নাম সম্রাট সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা জুয়েলকে যুক্তরাষ্ট্রস্থ কোম্পানীগঞ্জবাসীর সংবর্ধনা! ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ড একটি জাতিগোষ্ঠী ও জাতিসত্তাকে গণহত্যার সামিল রামগঞ্জে ছাত্রলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি পালিত মুজিববর্ষ উপলক্ষে নোয়াখালীতে ছাত্রলীগের উদ্যোগ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ২১ শে আগস্ট ও বিএনপির ঐতিহাসিক বিচারহীনতার চরিত্র কোম্পানীগঞ্জসহ আরও ১০টি অর্থনৈতিক অঞ্চলের স্থান চূড়ান্ত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা: কী ঘটেছিল সেই দিন বঙ্গবন্ধু বিশ্বের মুক্তিকামী সকল মানুষের রাজনৈতিক আদর্শ

করোনার বিস্তার রোধে বাংলাদেশের উদ্যোগের সঙ্গে একমত জাতিসংঘ

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৮ মার্চ, ২০২০

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) বিস্তার রোধে বাংলাদেশ সরকার যেসব উদ্যোগ বা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে, তার সঙ্গে সম্পূর্ণরূপে একমত ও সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রয়েছে জাতিসংঘ।

শনিবার (২৮ মার্চ) রাতে বৈশ্বিক সংস্থা জাতিসংঘের ঢাকা অফিস থেকে পাঠানো এক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়।

জাতিসংঘের বার্তায় বলা হয়, ‘জাতীয় প্রস্তুতি ও সাড়া প্রদান পরিকল্পনা (কান্ট্রি প্রিপেয়ার্ডনেস অ্যান্ড রেসপন্স প্ল্যান) হলো একটি পরিকল্পনার নথি, যা যৌথভাবে জাতিসংঘ ও বাংলাদেশে সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতর সুশীল সমাজের অংশীদার ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় তৈরি করেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বৈশ্বিক নির্দেশনার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে তৈরি করা এই নথির উদ্দেশ্য হলো- বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ মহামারির প্রেক্ষাপটে সরকারের সাড়া প্রদানে সহায়তা করতে জাতিসংঘের সংস্থা ও অংশীদারদের কার্যকরভাবে প্রস্তুত করা।’

‘কোভিড-১৯ বিস্তার রোধে বাংলাদেশ সরকার যেসব ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে, সেগুলোর সঙ্গে জাতিসংঘ সম্পূর্ণরূপে একমত’, এমন তথ্য জানিয়ে বার্তায় বলা হয়, ‘বাংলাদেশ সরকার, জাতিসংঘ, সুশীল সমাজ ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশীদারিত্বে অতি দ্রুততার সঙ্গে বেশকিছু ব্যবস্থা নিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে- বাধ্যতামূলক কোয়ারেনটাইন ও আইসোলেশন, এই ভাইরাসটির ঝুঁকির ব্যাপারে ব্যাপকভাবে অবহিত করা, সামাজিক দূরত্ব (সোস্যাল ডিসটেন্সিং), সামাজিক সুরক্ষা (সোস্যাল প্রোটেকশন) এবং বিদ্যালয় ও জনসমাগম হয়— এমন স্থানগুলো বন্ধ করে দেওয়া। বৈশ্বিক স্বীকৃত যে মডেল দ্বারা এই নথিটি পরিচালিত তাতে দেখানো হয়েছে যে, এই ভাইরাসটির বিস্তার রোধে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে এর মহামারি বিস্তার ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।’

বার্তায় আরও বলা হয়, ‘এই ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়া রোধ করার জন্য অতি দ্রুত কোনো প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে তা অত্যন্ত দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই আমরা সবাইকে এসব ব্যবস্থা মেনে চলার আহ্বান জানাচ্ছি। এতে বাংলাদেশ সরকার ও জাতিসংঘের সংস্থা, সুশীল সমাজ ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো দেশব্যাপী স্বাস্থ্য ব্যবস্থা আরও জোরদার করার জন্য বেশকিছুটা সময় পাবে। এর ফলে বাংলাদেশ এই মহামারিকে দমন করতে করতে পারবে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/