• মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ১০:২১ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনায় থাকবেন দশ লাখ আলেম-ওলামা-আল্লামা ফরীদ উদ্দীন

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩ নভেম্বর, ২০১৮

 

বাংলাদেশে কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতি দেয়ায় শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা উপলক্ষে আয়োজিত শোকরানা মাহফিলে দশ লাখের বেশি আলেম ওলামা উপস্থিত হবেন বলে জানান হেফাজত ইসলামের নেতারা ও জাতীয় দ্বীনি মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড ও জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান শাইখুল হাদিস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ। আজ শনিবার শোকরানা মাহফিলের প্রস্তুতি কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করতে এসে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেন, ‘এটি নির্বাচনী সমাবেশ নয়।

প্রধানমন্ত্রী এই কওমি মাদ্রাসার জন্য নজিরবিহীন একটি কাজ করেছেন। যা ইতোপূর্বে কেউই করেনি বাংলাদেশ কওমি মাদ্রাসা যতদিন থকবে শেখ হাসিনা ইতিহাস হয়ে থাকবে কওমি মাদ্রাসায় ও আলেম সমাজে । আলেম সমাজ তাকে শুকরিয়া জানাতেই একত্র হবো।’ আল্লামা আহমদ শফী শোকরানা মাহফিলে উপস্থিত থাকবেন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ইনশাআল্লাহ উপস্থিত থাকবেন। আল্লামা শফী সাহেব নিজেই তো প্রধানমন্ত্রীকে দাওয়াত দিয়েছেন। মাহফিলের সভাপতিত্বও করবেন আল্লামা আহম্মদ শফী সাহেব । কাল মহান আল্লাহ যেন, উনাকে সুস্থ রাখুন।

হেফাজতে ইসলাম একসময় সরকারের বিরুদ্ধে শাপলায় অবস্থান নিয়েছিল এখন পক্ষে চলে এসেছে কীভাবে- এমন প্রশ্নে আল্লামা মাসঊদ বলেন, হেফাজতে ইসলাম কখনো সরকারের বিরুদ্ধে ছিল না। আমরা শাপলা চত্বরে আমাদের দাবি সরকারের কাছে পেশ করেছিলাম। এখন তো অনেক বড় একটি উপহার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের আলেম সমাজকে দিয়েছেন।

কওমি মাদ্রাসা স্বীকৃতি প্রদান, আইন পাস এত ছোট কোনো বিষয় নয়। এটা নজিরবিহীন। বিশাল এই আলেমদের সমাবেশে প্রধানমন্ত্রীর কাছে কোনো দাবি রাখা হবে কি না জানতে চাইলে আল্লামা মাসঊদ বলেন, এরকম কোনো বিষয়ে এখনো পরামর্শ হয়নি। তবে জামায়াত নিষিদ্ধকরণ, কাদিয়ানিদের মিথ্যাচার প্রচারের বিরুদ্ধে কথা হতে পারে। প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়েও বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারেন বলে আশা করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/