• রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

নোয়াখালীতে ভুয়া ডাক্তার ও অনুমোদন হীন হাসপাতাল বন্ধ করায় সিভিল সার্জনের বিরুদ্ধে অপ-প্রচার!

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

বিশেষ প্রতিনিধি : নোয়াখালীর বর্তমান সিভিল সার্জন ডা. মোঃ মোমিনুর রহমান নোয়াখালীতে যোগদানের পর থেকে এই জেলার স্বাস্থ্যসেবায় ব্যাপক পরিবর্তন লক্ষ করা যায়। সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় খুব সহজে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে তিনি নেন নানান প্রদক্ষেপ। নিজে গিয়ে সরাসরি সকল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও কমিউনিটি ক্লিনিক গুলোতে তদারকি করেন।

সেই সাথে নোয়াখালীতে থাকা ভুয়া ডাক্তারদের আতংকের কারন হয়ে দাঁড়ায় ডা. মো মোমিনুর রহমান। তিনি যোগদানের পর থেকে নোয়াখালীতে থাকা ভুয়া ডাক্তার ও অনুমোদন হীন হাসপাতাল গুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করেন। সাধারণ মানুষ তাঁর এমন উদ্যোগের জন্য তাকে স্বাগত জানিয়েছে।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ সদর ও সেনবাগ উপজেলা সহ বিভিন্ন স্থানে অনুমোদনহীন হাসপাতাল আর ল্যাবের রমরমা ব্যবসা চলে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এসব হাসপাতালে নেই কোন ডিউটি ডাক্তার। হাসপাতাল চলছে সার্টিফিকেট বিহীন নার্স আর DMF এর ডাক্তারদের মাধ্যমে। অনুমোদন নেই ফার্মেসী বা অন্যান্য দপ্তরেরও। অথচ দীর্ঘদিন ধরে চালিয়ে যাচ্ছে অসহায় মানুষের সাথে অপচিকিৎসার এই প্রতারণা। এসব তথ্য সিভিল সার্জনের কানে আসার পরপরই তিনি তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করেন।

সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ও প্রমাণ সহ জেলা পুলিশ ও ম্যাজিস্ট্রেট এর যৌথ অভিযানে গত কিছুদিন আগে ছয়টি বেসরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারকে করা হয় জেল জরিমানা। জনগণকে ভুল ও অপচিকিৎসার হাত থেকে বাঁচাতে নোয়াখালী সিভিল সার্জন কার্যালয় এর পক্ষ থেকে নেওয়া হয় এমন উদ্যোগ। এর আগে তাদেরকে বারবার সতর্ক করা হয়েছিল।

কিন্তু নিজেদের শুধরে নেয়া তো দূরের কথা, চিকিৎসার নামে তারা সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা শুরু করেছে এবং উল্টো অবৈধ হাসপাতাল এর মালিকপক্ষ কোনো প্রমাণ ছাড়াই ঘুষের অভিযোগ আনছে নোয়াখালী সিভিল সার্জন ডা. মোমিনুর রহমান এর বিরুদ্ধে। রীতিমতো প্রেস ব্রিফিং করে হলুদ সাংবাদিকতার আশ্রয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ নানাভাবে মিথ্যাচার করেই যাচ্ছে তারা। অথচ সেই প্রেস ব্রিফিংয়েও কোনো লাইসেন্স দেখাতে পারে নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোমিনুর রহমান এই মিথ্যাচার এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সকল অপশক্তি শক্ত হাতে দমন করার পাশাপাশি এরকম অবৈধ অন্যান্য অনুমোদন হীন হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখার কথা জানান তিনি।

ইতিমধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রধান স্বাস্থ্য পরিচালক জনাব হাসান শাহরিয়ার কবির নোয়াখালী সিভিল সার্জনের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন। সেই সাথে তিনি আরো কঠোরভাবে এই সকল অনুমোদন হীন হাসপাতাল ও ভুয়া ডাক্তারদের বিরুদ্ধে যাথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহন করার নির্দেশনা প্রদান করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/