• বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৩৩ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

তাপসকে ভোট দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা শনিবার দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে নিজের ভোট দিয়েছেন।

সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরুর পর ঢাকা সিটি কলেজ কেন্দ্রে ভোট দেন। পরে কেন্দ্র থেকে বেরিয়ে তিনি সাংবাদিকদের কাছে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন, তিনি দক্ষিণ সিটির আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপসের নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়েছেন।

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে বিএনপিসহ বিভিন্ন পক্ষের উদ্বেগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইভিএম হচ্ছে ভোট দেওয়ার ডিজিটাল পদ্ধতি। এই পদ্ধতিতে ভোট চুরি করা যায় না বলেই বিএনপির এত উদ্বেগ। এ সময় তিনি সবাইকে কেন্দ্রে এসে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।

ঢাকার দুই সিটির নির্বাচন নিয়ে বাংলাদেশে অবস্থিত বিদেশি দূতাবাসগুলোর উদ্বেগ প্রকাশ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাদের দেশে কেমন নির্বাচন হয় আমরা জানি। এ ছাড়া দূতাবাসগুলোতে কর্মরত বাংলাদেশিদের নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিয়ে তারা গর্হিত কাজ করেছে। আর তাদের পর্যবেক্ষক হিসেবে অনুমতি দেওয়া নির্বাচন কমিশনেরও উচিত হয়নি।

উল্লেখ্য, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র ও কাউন্সিলর পদে নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে। কোনোরকম বিরতি ছাড়াই ভোট চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

দুই সিটিতে মেয়র পদে লড়ছেন ১৩ জন প্রার্থী। এর মধ্যে উত্তরে ছয়জন এবং দক্ষিণে সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এবারই প্রথম কোনো সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পুরো ভোট ব্যালট পেপারের পরিবর্তে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ইভিএম এর নিরাপত্তার জন্য প্রতিটি কেন্দ্রে দুজন করে সেনাবাহিনীর সদস্য আছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/