• মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

এশিয়ার বড় অর্থনৈতিক অঞ্চল হবে মিরসরাইয়ের ‘শেখ মুজিব শিল্পনগর’

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২০




শহীদ খাঁন:

‘এশিয়ার বৃহত্তম অর্থনৈতিক অঞ্চল হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর। ৩০ হাজার একর জমিতে স্থাপিত এ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১৫ লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে। এটি চালু হলে মিরসরাইয়ে আর বেকার থাকবে না। চলতি বছরই কয়েকটি কারখানা উৎপাদনে যাবে।’



বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরের মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে এশিয়ান পেইন্টসের কারখানার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বুধবার (২২ জানুয়ারি) স্থানীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এসব কথা বলেন।



অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী, এশিয়ান পেইন্টসের বাংলাদেশ ব্যবস্থাপক ঋতিশ দোষী, আঞ্চলিক প্রধান টম টমাস, পরিচালক রূপম কিশোর বড়ুয়া, মিরসরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এম আলা উদ্দিন।



বেজা চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর শুধু বাংলাদেশেরই নয়, বিশ্বের শ্রেষ্ঠ অর্থনৈতিক অঞ্চল হবে। মিরসরাই, সীতাকুন্ড, সোনাগাজী, কোম্পানীগঞ্জ, সন্দ্বীপ উপজেলা নিয়ে এটি প্রতিষ্ঠা করা হবে। সরকার আগামী ৫ বছরে এখানে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে সড়ক, ব্রিজ নির্মাণসহ বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়ন করবে। গুলশান-বনানীর চেয়েও আরো সুন্দর নগরী হিসেবে গড়ে উঠবে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম পরিকল্পিত এ শিল্প শহর।



এশিয়ান পেইন্টসের ব্যবস্থাপক ঋতিশ দোষী বলেন, মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে ২০ একর জায়গার ওপর এশিয়ান পেইন্টসের দ্বিতীয় কারখান স্থাপন করা হচ্ছে। যেখানে রং তৈরি ছাড়াও রং তৈরির উপকরণ সৃষ্টি করা হবে। যা বর্তমানে বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়।



‘২০২১ সালের জুন মাসের মধ্যে কারখানাটি উৎপাদনে যাবে। এশিয়ার সবচেয়ে বড় রং তৈরির কারখানা হবে এটি। এখানে ২০ মিলিয়ন ইউএস ডলার বিনিয়োগ করা হবে। কারখানাটিতে ২০০ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান হবে। এটি হবে পরিবেশবান্ধব কারখানা।’



আলোচনা সভা শেষে অতিথিরা কারখানার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং কারখানা প্রাঙ্গণে বৃক্ষরোপন করেন।


নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/