• বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

কুড়িগ্রামে বয়স্ক ভাতার টাকা ছিনতাই

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২০

যমুনা নিউজ/কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে মমিরন বেগম নামের একজন বৃদ্ধার বয়স্ক ভাতার টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা হয়েছে। বুধবার দুপুরে তিন মাসের বয়স্ক ভাতার ১৫শ’ টাকা তুলতে সমাজসেবা অফিসে যান মমিরন বেগম। টাকা তোলার পর উপজেলা পরিষদ চত্বরে আসলে একজন যুবক কৌশলে তার টাকাগুলো হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।

মমিরন বেগম জানান, অপরিচিত এক যুবক টাকা গুনে দেয়ার কথা বলে তার কাছ থেকে টাকা নেয়। পরে তা ফেরত না দিয়ে পালিয়ে যায়। মমিরন বেগম ভূরুঙ্গামারী উপজেলার আন্ধারীঝাড় ইউনিয়নের চর বারুইটারী গ্রামের মৃত ওমর আলীর স্ত্রী। জাতীয় পরিচয় পত্র অনুযায়ী তার জন্ম ১৯৩৭ সালে। বয়সের ভারে ঠিকমত কথা বলতে পারেন না তিনি। স্বামী মারা যাবার পর থেকে তিনি ছেলের সাথে আন্ধারীঝাড় ইউনিয়নের চর ধাউরারকুঠি গ্রামে থাকেন।

টাকা খুইয়ে তিনি সমাজসেবা অফিসের বারান্দার খুঁটিতে হেলান দিয়ে বসে বার বার বিলাপ করে বলছেন ‘বাবারা তোমরা আমার টেকাগুলান ফিরাইয়া দেও। এই টেহায় আমার সংসার চলে। তিন চাইর মাসের খাওয়া খরচ চলে। তোমরা আমার টেকাগুলা ফিরাইয়া দেও। অসহায় মমিরন বেগমের পাশে নেই কেউ। সচেতন নাগরিকদের ধারণা নেশাগ্রস্থ যুবকেরাই এসব ঘটনা ঘাটাচ্ছে। এর আগেও বেশ কয়েকটি এমন ঘটনা ঘটেছে উপজেলা চত্বরে। এরূপ ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জোরালো পদক্ষেপ গ্রহণ করার দাবী এলাকার সচেতন মহলের।

ভূরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ কবির জানান, এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ,এইচ, এম মাগফুরুল হাসান আব্বাসী জানান, এরকম ঘটনার কথা কেউ আমাকে জানায়নি, তবে ঘটনা যদি সত্যি হয় তাহলে খুবই দু:খজনক। এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে তার ব্যবস্থা গ্রহন করার আশ্বাস দেন তিনি এবং টাকা খোওয়ানো বৃদ্ধাকে ব্যক্তিগত ভাবে সহযোগিতা করার আশ্বাসও দেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/