• শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০২:০২ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে ধৃষ্টতা দেখালে জবাব দেবে ছাত্রলীগ নড়াইলের চৈতী রানী বিশ্বাস কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য নোয়াখালীতে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা জুয়েল সংবর্ধিত! রামগঞ্জে ভাটরা ইউনিয়ন শ্রমিকলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের কমিটি অনুমোদন রামগঞ্জ পৌর নির্বাচনে ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মনির হোসেন রানার মতবিনিময় সভা বঙ্গবন্ধু পরিবারের প্রভাবশালী ছয় সদস্য যুবলীগে রামগঞ্জে পৌর ০২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী খালেদ পাটওয়ারী বাদশার মতবিনিময় সভা পরশ নিখিলের নেতৃত্বে ‘ক্যাসিনোমুক্ত’ যুবলীগের নবযাত্রা রামগঞ্জে পৌর ০৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মেহেদী হাসান শুভর মতবিনিময় সভা বাংলাদেশ স্কিল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি কাতারের গুরুত্বপূর্ণ পদে রামগঞ্জের ভাবলু ও সবুজ নির্বাচিত

ভারতের ঝাড়খণ্ড লন্ডভন্ড বিজেপি

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৯

ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে হটিয়ে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে কংগ্রেস, ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা (জেএমএম) ও রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি) জোট। মোট ৮১টি আসনের মধ্যে কংগ্রেস জোট জিতেছে ৪৭টি আসনে অন্যদিকে ক্ষমতাসীন বিজেপি জিতেছে ২৫টি আসনে। বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী রঘুবীর দাস পরাজয় মেনে নিয়ে বলেছেন ঝাড়খণ্ডে বিজেপি হারেনি তিনি নিজে হেরেছেন। খবর এনডিটিভি’র।

৩০ নভেম্বর থেকে ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৮১ আসনের ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় ৫ দফায় ভোট হয়েছে। আজ সকালে ভোট গণনা শুরু হলে শুরুতে দুই পক্ষের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শুরু হয়। তবে বেলা যত গড়াতে থাকে ততই ভোটের ফলাফল জোট শিবিরের দিকেই ঝুঁকে পড়তে শুরু করে। আর তাতেই ধীরে ধীরে স্পষ্ট হয়ে যায় পালাবদলের ইঙ্গিত। 

ফলে জেএমএম ও কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকরা আগে থেকেই উৎসবে মেতে উঠে। কোথাও মিষ্টিমুখ আবার কোথাও বাজি পোড়াতে শুরু করেন কংগ্রেস ও জেএমএম সমর্থকরা।

শেষ পর্যন্ত ৪৭টি আসনে জয়ী হয় জেএমএম ও কংগ্রেস জোট। সরকার গঠন করতে ৪১টি আসনে জয়ী হওয়া প্রয়োজন ছিলো। এই জয়ের ফলে মুখ্যমন্ত্রী হতে যাচ্ছে জেএমএম এর হেমন্ত সোরেন।

বিজেপির মুখপাত্র বিজয় সোনকর শাস্ত্রী এনডিটিভিকে জানিয়েছেন, নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাশা অনুযায়ী হয়নি। আমরা আশা করেছিলেন ৬৫ আসনে জিতব। এদিকে বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী রঘুবীর দাস এক বিবৃতিতে বলেছেন, ঝাড়খণ্ডে তিনি পরাজিত হয়েছেন, তবে বিজেপির পতন হয়নি। 

গত বছর কংগ্রেসের কাছে রাজস্থান, মধ্য প্রদেশ এবং ছত্তিশগড় হারিয়েছিল বিজেপি। চলতি বছর লোকসভায় নির্বাচনে বড়ো জয় পেলেও মহারাষ্ট্র হাতছাড়া করে দলটি। তাই ঝাড়খণ্ডের নির্বাচন তাদের কাছে ছিলো খু্বই গুরুত্বপূর্ণ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/