• শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
সালাউদ্দিন কে সরাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়! জনতার রাজনীতির এক যোদ্ধার নাম সম্রাট সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা জুয়েলকে যুক্তরাষ্ট্রস্থ কোম্পানীগঞ্জবাসীর সংবর্ধনা! ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ড একটি জাতিগোষ্ঠী ও জাতিসত্তাকে গণহত্যার সামিল রামগঞ্জে ছাত্রলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি পালিত মুজিববর্ষ উপলক্ষে নোয়াখালীতে ছাত্রলীগের উদ্যোগ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ২১ শে আগস্ট ও বিএনপির ঐতিহাসিক বিচারহীনতার চরিত্র কোম্পানীগঞ্জসহ আরও ১০টি অর্থনৈতিক অঞ্চলের স্থান চূড়ান্ত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা: কী ঘটেছিল সেই দিন বঙ্গবন্ধু বিশ্বের মুক্তিকামী সকল মানুষের রাজনৈতিক আদর্শ

সাধারণ সম্পাদক পদে ওবায়দুল কাদেরই আলোচনার শীর্ষে

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০১৯

আমাদের সময়: আজ সকাল ১০টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অধিবেশন। কাউন্সিল অধিবেশনে নির্বাচন পরিচালনার জন্য ৩ সদস্যের কমিশন গঠন করা হয়েছে। কমিশনের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, অপর ২ সদস্য ড. সাইদুর রহমান ও ড. মসিউর রহমান। সারাদেশ থেকে আসা দলের প্রায় সাড়ে ৭ হাজার কাউন্সিলর আজকের কাউন্সিল অধিবেশনে নতুন নেতৃত্ব নিয়ে কথা বলার সুযোগ পাবেন। এবার আওয়ামী লীগকে সৎ, ত্যাগী, পরিচ্ছন্ন নেতাদের নিয়ে সাজানো হবে। গতকাল শুক্রবার আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে সারাদেশ থেকে আসা তৃণমূল নেতারা এমন প্রত্যাশাই ব্যক্ত করেছেন।



আজকের কাউন্সিল অধিবেশনে ৭৮টি সাংগঠনিক জেলার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা তাদের সাংগঠনিক প্রতিবেদন পেশ করবেন। এরপর দলের সংশোধিত ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্র অনুমোদন করা হবে। এসব কার্যক্রম শেষে বর্তমান কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত করা হবে। এরপর শুরু হবে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন প্রক্রিয়া। দলের জ্যেষ্ঠ নেতারা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম প্রস্তাব ও সমর্থন করবেন। এরপর কাউন্সিলরদের কণ্ঠভোটে তা পাস হলে আগামী ৩ বছরের জন্য নতুন নেতৃত্ব পাবে আওয়ামী লীগ। এবার কেন্দ্রীয় কমিটি হবে ৮১ জনের।



যদিও আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই থাকছেন, এ বিষয়টি পুরোপরি নিশ্চিত। আর তাই সবার কৌতূহল সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে। কিন্তু এ পদে পরিবর্তন হচ্ছে কিনা, কিংবা নতুন কমিটির বিভিন্ন পদে কারা আসছেন, বর্তমান কমিটির কারা বাদ পড়ছেন, এসব বিষয়ে সুস্পষ্ট কোনো ধারণা নেই দলের কারো। এখন পর্যন্ত আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শেষ হাসি তিনিই হাসবেন এমন ধারণা অনেকের। তবে আলোচনায় রয়েছেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং কার্যনির্বাহী সদস্য আজমত উল্লাহ খান।


নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/