• মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:২১ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
ডুবাইয়ে ইস্কান্দার মির্জা শামীমকে সম্মাননা প্রদান বিকাশ প্রতারকের সঙ্গে প্রেম করে টাকা উদ্ধার করলেন কলেজছাত্রী কোম্পানীগঞ্জে অটোরিকশা চাপায় স্কুল ছাত্র নিহত! চিফ হুইপের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, গ্রেফতারকৃত জাহিদ ৩ দিনের রিমান্ডে মামুনুল ও ফয়জুলের গ্রেপ্তারের দাবিতে শাহবাগ অবরোধ রামগঞ্জে পৌর সোনাপুর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ফয়সাল মালের নির্বাচনি মোটরবাইক শোডাউন জোনাকি পোকা হিংসে হয় দিবালোকের প্রতি!! রামগঞ্জে পৌর নির্বাচনে সোনাপুর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাজুকে পুনরায় নির্বাচিত করার লক্ষে আলোচনা সভা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে ধৃষ্টতা দেখালে জবাব দেবে ছাত্রলীগ নড়াইলের চৈতী রানী বিশ্বাস কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য

দেশের মানুষ পরিবর্তন চায়, শান্তি চায় : এরশাদ

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০১৮

জাতীয় পাটির চেয়ারম্যান হোসেন মুহাম্মদ এরশাদ মন্তব্য করেছেন যে ভোট ছাড়াই সরকার পরিবর্তন হবে না, জাতীয় পার্টি আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে,এবং ৩০০ প্রার্থী  আসন প্রার্থী দিবে। জেলা পর্যায়ের প্রথম দিনেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

নির্বাচন ইশতেহার ঘোষণার একদিন পর, জাতীয় পার্টির প্রথম জেলা-সফর। নির্বাচনের আগে এই সফরে দলের নেতৃবৃন্দ ও কর্মীরা গুরুত্ব দিচ্ছেন। নবীনগর সমাবেশ থেকে ৩০০ আসনে নির্বাচন ও ভোটারদের আকর্ষণের জন্য বিভিন্ন দলের নেতৃবৃন্দ ও কর্মীকে সিনিয়র নেতারা নির্দেশনা দেন।

জাতীয় পার্টির সময়ে উন্নয়ন ইতিহাস তুলে ধরে চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ বলেন, জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় থাকলে উন্নয়ন অগ্রগতি চলবে। শান্তিপূর্ণ রাজনীতি চলবে । হুসেন মুহাম্মদ এরশাদ বলেন, যেকোনো পরিস্থিতিতেই জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। যদি সকল দল নির্বাচনে অংশ নেয়, তাহলে জোট অংশীদার হবে।

এরশাদ আরও বলেন, আওয়ামী লীগ-বিএনপির নির্যাতন সত্ত্বেও জাতীয় পার্টি বেঁচে আছে। জাপার সময় দুই পক্ষের শাসনের সাথে তুলনা করে তিনি বলেন, জনগণ এটাকে ভুল পথে চালাতে চায়, জনগণ চায় শান্তি চায়, পরিবর্তন চায়, নতুন শক্তি চায়। এরশাদ বলেন, জাতীয় পার্টি সব পক্ষের অংশ গ্রহন মুলক নির্বাচনে চায়, তবে নির্বাচনে কোনো দলের আসার জন্য অপেক্ষা করা হবে না। নির্বাচন ছাড়া কোন সরকার পরাজিত করা যায় না, দলকে শক্তিশালী করা যায় না, বলেও মন্তব্য করেন।

কাজী মামুনকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রার্থী হিসাবে ৫ আসনে প্রার্থী করে হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন এবং  জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান লাঙ্গল প্রতীককে ভোট  চান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/