• সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আগুন!

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৮ অক্টোবর, ২০১৯

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অ-গ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আজ

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নয়াপল্টনে অবস্থিত বিএনপির কেন্দ্রীয়

কার্যালয় এবং মিডওয়ে হোটেলের মাঝের গলিতে এই অ-গ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

পরে ধোঁয়া দেখে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির, সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হাসান জীবনসহ নেতাকর্মীরা কার্যালয় থেকে বেরিয়ে আসেন। বালতিতে পানি নিয়ে আ-গুন নেভানোর চেষ্টা করেন তারা।

কার্যালয়ের পাশেই ভিক্টোরিয়া হোটেলের কর্মীরাও তাদের হোটেলের এক্সটিংগুইশার দিয়ে আ-গুন নেভানোর কাজে নেমে পড়েন।

আ-গুনের খবর পেয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকনসহ অনেকেই অফিসে ছুটে আসেন। এ সময় রাস্তায় ভিড় জমে যায়।

ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তর সূত্র জানায়, অ-গ্নি-কাণ্ডের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ১৫ মিনিট চেষ্টার পর আ-গুন নিয়ন্ত্রণে

আনেন। অ-গ্নি নির্বাপনের কাজে অংশ নেয়। বৈদ্যুতিক লাইন থেকে অ-গ্নি-কাণ্ডের সূত্রপাত বলে সূত্র জানায়।

বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক মুহাম্মদ মুনির হোসেন বলেন, আ-গু-নে বড় কোনো ক্ষতি না হলেও প্রায় পৌনে একঘণ্টা দলের কার্যালয় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ছিল। অন্ধকারে কার্যালয়ের মধ্যে ভুতুড়ে পরিবেশ তৈরি হয়।

এদিকে নয়াপল্টনে দুপুর ১২টার দিকে দলের পূর্ব নির্ধারিত সংবাদ সম্মেলন শুরু হওয়ার কথা থাকলেও একঘণ্টা পর দুপুর ১টার দিকে শুরু হয়। শুরুতে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম

মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে দেরি করার কারণ ব্যাখ্যা করেন। অ-গ্নিকাণ্ডে বড় ধরনের ক্ষতি না হওয়ায় তিনি আল্লাহর কাছে শুকরিয়া প্রকাশ

করেন। এ সময় তিনি বলেন, ওইসময় সাংবাদিকরা তাদের দায়িত্ব পালন করায় দ্রুত ফায়ার সার্ভিস এসেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..