• মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:০৭ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
ডুবাইয়ে ইস্কান্দার মির্জা শামীমকে সম্মাননা প্রদান বিকাশ প্রতারকের সঙ্গে প্রেম করে টাকা উদ্ধার করলেন কলেজছাত্রী কোম্পানীগঞ্জে অটোরিকশা চাপায় স্কুল ছাত্র নিহত! চিফ হুইপের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, গ্রেফতারকৃত জাহিদ ৩ দিনের রিমান্ডে মামুনুল ও ফয়জুলের গ্রেপ্তারের দাবিতে শাহবাগ অবরোধ রামগঞ্জে পৌর সোনাপুর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ফয়সাল মালের নির্বাচনি মোটরবাইক শোডাউন জোনাকি পোকা হিংসে হয় দিবালোকের প্রতি!! রামগঞ্জে পৌর নির্বাচনে সোনাপুর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাজুকে পুনরায় নির্বাচিত করার লক্ষে আলোচনা সভা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে ধৃষ্টতা দেখালে জবাব দেবে ছাত্রলীগ নড়াইলের চৈতী রানী বিশ্বাস কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য

যা হওয়ার হোক’ মিথ্যা মামলা আমি নিব না: ওসি সাহাদাত হোসেন!

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯






ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানায় ওসি সাহাদাত হোসেন টিটো’র প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা বেড়েছে। আগে যেখানে সমাজের ছোটখাটো ঘটনা নিয়ে গ্রামের সহজ-সরল মানুষেরা থানায় এসে একশ্রেণীর তদবিরবাজ লোকদের প্ররোচনায় পড়ে নানা হয়রানির শিকার হতো এবং অনেকে পূর্ব শত্রুুতার জেরে ‘তিল কে তাল বানিয়ে’ মিথ্যা মামলা রেকর্ড করিয়ে প্রতিপক্ষকে হয়রানি করতো সেই পরিবেশ এখন সরাইল থানায় নেই। আর এখানে এই পরিবেশ তৈরি করেছেন ওসি সাহাদাত হোসেন টিটো যোগদানের পর তাঁর ইতিবাচক ভূমিকার মাধ্যমে। এমনটাই দাবি করেছেন।



স্থানীয় সুশীল সমাজের লোকজনসহ জনপ্রতিনিধি অনেকেই।জানা গেছে, নাগরিক জীবনে শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষা ও সার্বিক নিরাপত্তা বিধানে বাংলাদেশ পুলিশের চৌকস সদস্যরা ভূমিকা রাখছেন। ‘পুলিশই জনতা জনতাই পুলিশ’ এই স্লোগানের বাস্তব প্রতিফলন এখন চোখে পড়ে সরাইল থানায় কমপ্লেক্সে। সাধারণ মানুষ যেই কেউ নানা বিষয় নিয়ে এখন সরাইল থানায় এসে ওসি সহ সকল পুলিশ অফিসার এর সঙ্গে কথা



বলে সমস্যার সমাধান নিয়ে ফিরছেন। শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় সরেজমিন সরাইল থানা কমপ্লেক্সে কিছু সময় অবস্থান করে এমন দৃশ্যই চোখে পড়লো।কালিকচ্ছ এলাকার শহিদুল ইসলাম এসেছেন মামলার তদন্ত সম্পর্কে জানতে। পুলিশ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কয়েক মাস আগেও এ থানায় এলে এখানে কিছু দালাল প্রকৃতির লোকের আনাগোনায় আমারা ভুক্তভোগীরা পুলিশ অফিসারদের সঙ্গে কথাই বলতে পারিনি। তখন বাধ্য হয়ে তাদের সহযোগিতা নিতে হয়েছে। কিন্তু এখন দৃশ্যপট উল্টো, আমি নিজে কথা বলে আমার সমস্যার সমাধান।



নিয়ে এসেছি।সদরের মোছা. নাছিমা বেগম নামে এক প্রবাসীর স্ত্রী এসেছেন জরুরি একটি সমস্যা নিয়ে। ফেরার পথে ওই নারী পুলিশ সম্পর্কে বলেন, এ কাজটি নিয়ে এলাকার মেম্বারের বাড়িতে পাঁচদিন গেলাম। তিনি থানায় আসবেন বলে আমাকে ঘুরাইলেন। আজ মনে সাহস নিয়ে নিজেই থানায় আসলাম। এখানকার পুলিশ অফিসারদের মনোযোগ ও ব্যবহারে আমি খুবই সন্তুষ্ট হলাম। পাশাপাশি আমার সমস্যার সুন্দর সমাধান পেলাম।সরাইল উপজেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক মো. তাসলিম উদ্দিন বলেন, সরাইল থানায় ওসি হিসেবে সাহাদাত হোসেন টিটো যোগদানের পর এখানকার দৃশ্যপট অনেকটা পরিবর্তন হয়েছে। নানা জরুরি কাজে সরাসরি সাধারণ মানুষের আনাগোনা এখানে বেড়েছে। থানার ওসি সহ সকল পুলিশ অফিসার মনোযোগ সহকারে ভুক্তভোগীদের কথা শুনে তাদের সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছেন। এখানকার পুলিশের সঙ্গে সাধারণ মানুষের সম্পর্ক বেড়েছেএ বিষয়ে জানতে চাইলে সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাহাদাত হোসেন টিটো এ প্রতিবেদককে বলেন, আমরা মানুষের জন্য কাজ করি। সাধারণ মানুষকে যদি আমরা গুরুত্ব-ই না দেই তাহলে তাঁরা সেবা পাবেন কি করে ? তিনি বলেন, কোন অপরাধীর প্রতি আমরা নমনীয় নই। তবে মিথ্যা মামলা দিয়ে কেউ একে-অপরকে হয়রানি করবে, তা আমি হতে দিব না। আমি এখানে চাকরি করি বা না করি, কোন ধরনের মিথ্যা মামলা আমার হাতে রেকর্ড হবে না। অনেকে আমাকে ‘মিস ইউজ’ করার চেষ্টা করে, তবে আমি পাত্তা দেই না। এতে আমার যা হওয়ার হোক।


নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/