• মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৩৯ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

আগস্ট থেকে বাংলাদেশের জলসীমায় দুই ভারতীয় জাহাজ

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

গত ২০ আগস্ট বাংলাদেশের জলসীমায় দুটি ভারতীয় জাহাজ অনুপ্রবেশ করে। এগুলো মাছ ধরার জাহাজ বলে জানিয়েছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, মাছ ধরার জাহাজ দুটি ভারতের কন্টিনেন্টাল ফিশারিজ লিমিটেডের। জাহাজ দুটি এখন চট্টগ্রাম বন্দরে রয়েছে।

তবে জাহাজ দুটি কী উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ সমুদ্রসীমায় ঘুরছে সে বিষয়ে কোনো তথ্য দিতে পারেননি মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্টরা।

এ বিষয়ে ৮ সেপ্টেম্বর (রোববার) সংশ্লিষ্টদের নিয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।

বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব (ব্লু ইকোনমি) মো. তৌফিকুল আরিফ বলেন, ‘আমাদের জলসীমায় মাছ ধরার দুটি বিদেশি জাহাজের অনুপ্রবেশ ঘটেছে। শুনেছি জাহাজ দুটি মেরামতের উদ্দেশে আনা হয়েছে। তবে জাহাজ দুটি কী উদ্দেশ্যে আমাদের এখানে এসেছে? তারা কোন দেশের? কাগজপত্র দেখে সে বিষয়ে নিশ্চিত হব আমরা। এরপরই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

জাহাজের দুটির বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত হবে সে বিষয়ে আগামীকাল (রোববার) একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, বৈঠকে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ, নৌ-অধিদফতর, কোস্টগার্ড, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা সংস্থার প্রতিনিধিরা থাকবেন। সে বৈঠকেই সব কর্মকর্তাদের মতামতের ওপর ভিত্তি করে এ বিষয়ে করণীয় নির্ধারণ করা হবে এবং দ্রুত বাস্তবায়ন করা হবে। ’

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (হারবার ও মেরিন) ক্যাপ্টেন এম শফিউল বারী বলেন, এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু আমার জানা নেই। আগামীকাল সচিবালয়ের মিটিংয়ে গেলে হয়তো জানতে পারব।

সূত্র: যুগান্তর

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/