• বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:৪৬ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন কোম্পানীগঞ্জে ঋণের দায়ে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা! ডুবাইয়ে ইস্কান্দার মির্জা শামীমকে সম্মাননা প্রদান বিকাশ প্রতারকের সঙ্গে প্রেম করে টাকা উদ্ধার করলেন কলেজছাত্রী কোম্পানীগঞ্জে অটোরিকশা চাপায় স্কুল ছাত্র নিহত! চিফ হুইপের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, গ্রেফতারকৃত জাহিদ ৩ দিনের রিমান্ডে মামুনুল ও ফয়জুলের গ্রেপ্তারের দাবিতে শাহবাগ অবরোধ

মন্দিরের উপরে বাবরি মসজিদ তৈরির প্রমাণ দিন -ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট : ব্যর্থ আইনজীবি

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৯

প্রাচীন মন্দির বা হিন্দু ধর্মীয় কাঠামোর ধ্বংসাবশেষের উপরে বাবরি মসজিদ নির্মাণের যুক্তির স্বপক্ষে প্রমাণ দিন। শুক্রবার অযোধ্যা মামলার শুনানির সময় হিন্দু পক্ষগুলির আইনজীবীর থেকে এই প্রমাণ চাইল ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট।

এদিন মামলার শুনানির সময় মামলার অন্যতম রাম লালা বিরাজমান-এর আইনজীবী সিএস বিদ্যানাথনকে উদ্দেশ্য করে বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় বলেন, গত দু-সহস্রাব্দের বেশি সময় ধরে নদীর তীরে সভ্যতা গড়ে ওঠা এবং তা ধ্বংসের পরে সেখানে নতুন করে সভ্যতা গড়ে ওঠার নজির আছে। 

অনেক ক্ষেত্রে আগের কাঠামোর উপরে নতুন সভ্যতা গড়ে উঠেছে। ফলে যে ধ্বংসাবশেষের উপরে বাবরি মসজিদ নির্মিত হয়েছে সেটি মন্দির বা কোনও ধর্মীয় কাঠামো ছিল, তার প্রমাণ দিন।

জবাবে আর্কিওলজিক্যাল সার্ভের একটি খনন রিপোর্ট উদ্ধৃত করেন রাম লালা বিরাজমানের আইনজীবী বিশ্বনাথন।

তিনি জানান, খনন কাজে বাবরি মসজিদের নিচে খ্রিষ্টপূর্ব দু’শতকের একটি কাঠামোর সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। অর্থাৎ, কোনও খালি জমি বা কৃষি জমির উপরে যে বাবরি মসজিদ নির্মিত হয়নি, তা আর্কিওলজিক্যাল সার্ভের রিপোর্ট থেকেই পরিষ্কার।

তবে সেই প্রাচীন কাঠামো যে রামের মন্দিরই ছিল, এমন কোনও অকাট্য প্রমাণ যে নেই, তা স্বীকার করে নিয়েছেন বর্ষীয়ান এই আইনজীবী। তথ্য সূত্র: দ্য হিন্দু, ইন্ডিয়া টুডে।

পাকিস্তানের জমি থেকে ভারতের বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করেছে ইসলামিক সংগঠনগুলি

পাকিস্তানের জমি থেকে ভারতের বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করেছে ইসলামিক সংগঠনগুলি। সম্প্রতি পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের রাজধানী মুজফ্ফরবাদ থেকে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে মুজাহিদরা। ভারতে নাশকতা চালাতে মুসলিম ‘ধর্মযোদ্ধা’দের আহ্বান জানানো হয়েছে।

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, মুজাহিদ নেতা সৈয়দ সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে হিজবুল মুজাহিদিন এবং ইউনাইটেড জিহাদ কাউন্সিলের মতো সংগঠনগুলিকে ভারতে হামলা চালাতে পাক সরকার নতুন করে মদত দিচ্ছে। সংবিধানের ৩৭০ এবং ৩৫এ ধারা তুলে দিয়ে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর এবার ভারতের বিরুদ্ধে নতুন করে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে পাক জেহাদিরা।

গত বৃহস্পতিবারই পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের মুজফফরাবাদের প্রেসক্লাবের সামনে মিছিল করে হিজবুল মুজাহিদিনের খালিদ সইফুল্লা এবং নইব আমিরের মতো মুজাহিদ নেতারা। সেখানে সরাসরি জিহাদের ডাক দেওয়া হয়। ভারতের বিরুদ্ধে হামলার হুঁশিয়ারি দেওয়া একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়।

মুজাহিদদের আর্থিক মদত দেওয়ার জন্য ইতিমধ্যেই ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্সের গ্রে তালিকায় রয়েছে পাকিস্তান। এবার যদি ওই দেশ নিজের অবস্থান না বদলায় তাহলে কালো তালিকাভুক্ত করা হতে পারে ইসলামাবাদকে।

সূত্র: ইত্তেফাক

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/