• বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৩১ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন কোম্পানীগঞ্জে ঋণের দায়ে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা! ডুবাইয়ে ইস্কান্দার মির্জা শামীমকে সম্মাননা প্রদান বিকাশ প্রতারকের সঙ্গে প্রেম করে টাকা উদ্ধার করলেন কলেজছাত্রী

অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির নেতৃত্বকে প্রসংশায় ভাসিয়েছেন আইসিসি!

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০১৯

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স নিয়ে নিজেদের ওয়োবসাইটে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আইসিসি। তাদের বিশাল এক প্রতিবেদনে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের অর্জন, ভুল এবং ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের কথা তুলে ধরেছে। ইতিবাচক দিক থেকে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের অর্জন হিসেবে তারা, সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমাম, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, মুশফিকুর রহিম ও মেহেদী হাসান রানার কথা উল্লেখ করেছেন।

এবারের বিশ্বকাপে ব্যাটিং-বোলিংয়ে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন সাকিব। ব্যাটিংয়ে ৮ ম্যাচে করেছেন ৬০৬ রান। রয়েছে দুইটি শতক আর পাঁচটি অর্ধশতক। অন্যদিকে মুশফিকুর রহিমও ছিলেন দুর্দান্ত।পঞ্চাশোর্ধ্ব গড়ে ৩৬৭ রান করেছেন তিনি। রয়েছে ২ টি অর্ধশতক এটি শতক। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে লিটন দাসের অপরাজিত ৯১ রানের ইনিংসকে এক দুর্দান্ত ইনিংস আখ্যা দিয়েছে আইসিসি। বোলিংয়ে মোস্তাফিজের ২০ উইকেট আর সাইফুদ্দিনের ১৩ উইকেটের পাশাপাশি ব্যাটে এক ফিফটি যার প্রসংশা করেছে তারা। সাথে মিরাজের কিপটে বোলিংয়েরও প্রসংশা করেছে তারা।


সব মিলিয়ে আইসিসির দৃষ্টিতে বাংলাদেশের সেরা পারফর্মার সাকিব আল হাসান। আর তরুনদের মধ্যে সেরা পারফর্মার মোস্তাফিজুর রহমান। অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির নেতৃত্বকেও প্রসংশায় ভাসিয়েছেন তারা। সেই সাথে ম্যাশের পরে অধিনায়ক কে হতে পারে সেটি রেখে দিয়ে প্রশ্ন হিসেবেই। অন্যদিকে বাংলাদেশের উন্নতি করবার দিকটিও তুলে ধরেছে তারা। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সাথে ভালো ফিল্ডিংয়ে পরামর্শ দিয়েছেন।

আর পঞ্চপান্ডবের বিদায়ের পর কারা হাল করতে পারেন সেটিও উল্লেখ করেছেন। সেক্ষেত্রে লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মিরাজদের কথা বলেছেন তারা। প্রতিভাবান ক্রিকেটার হিসেবে সৌম্যের প্রসংশা করলেও তার ধৈর্যের অভাব বলে মনে করেছে আইসিসি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/