• সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:২২ অপরাহ্ন

অভিমানী মেঘ কেটে গেছে ছাত্রলীগ ঐক্যবদ্ধ, একসঙ্গে চলার অঙ্গীকার।

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯


নিজেদের মধ্যে আর ভুল বোঝাবুঝি নয়। এখন থেকে দুই পক্ষই সংগঠনের ইতিহাস ঐতিহ্যকে সম্মান করে এবং ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের এক পতাকাতলে চলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

রোববার রাত সাড়ে আটটা থেকে মধ্য রাত অবধি ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক হয়। বৈঠক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির দায়িত্বে থাকা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় চার নেতা পুনরায় ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের নিয়ে বৈঠক করেন। প্রায় ৪ ঘণ্টা ধরে চলা এ বৈঠক হয়।

বৈঠক সূত্র জানায়, দায়িত্বশীল নেতারা ছাত্রলীগের উভয় অংশের প্রতি আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কড়া বার্তা দেন। এরপর কয়েক ঘন্টাব্যাপী বৈঠকে উভয় পক্ষকে নিয়ে সমঝোতায় পৌঁছান। দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগ নেতারা তাদের কয়েকটি নির্দেশনা দেন। নির্দেশনাগুলো হল, পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে মধুর ক্যান্টিনে যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে সেই ঘটনায় যারা দোষী তাদের চিহ্নিত করে দ্রুত সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া, কমিটিতে স্থান পাওয়া যাদের বিরুদ্ধে বিতর্ক উঠেছে প্রমাণ স্বাপেক্ষে তার সত্যতা নিশ্চিত করে দলীয় পদ থেকে দ্রুত অব্যাহতি দিয়ে পদ শূন্য ঘোষণা করা এবং ত্যাগী কর্মীদের মূল্যায়ন করে পদায়নের নির্দেশ, সংগঠনের সাংগঠনিক নেত্রী আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাৎ করার দাবি জানালে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা নেত্রীর সময়ানুযায়ী দেখা করার ব্যবস্থা করে দেওয়ার আশ্বাস দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/