• সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৫৮ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

যশোরে বিএনপির ১০হজার নেতাকর্মী পদত্যাগ!

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮

দলীয় প্রার্থী না পেয়ে বিএনপি ছেড়ে দিলেন বিএনপির যশোরের মনিরামপুর শাখার নেতা-কর্মীরা। দলের সঙ্গে যারা পদত্যাগ করেছেন, তারা জানান, গত দুই দিনে এই সংখ্যাটি অন্তত ১০ হাজারের বেশী হবে। যশোর-৫ আসনে ২০০১ সাল থেকেই বিএনপির প্রার্থী না দিয়ে ছাড় দিয়ে আসছে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের একাংশের নেতা মুফতী মুহাম্মদ ওয়াক্কাস কে। কিন্তু এবার আর চাড় নই বলে বিদ্রোহ করে বসেছে বিএনপি অধিকাংশ নেতা।  শনিবার মুফতি ওয়াক্কাস বিএনপির চূড়ান্ত মনোনয়নের চিঠি নিয়ে এলাকায় যাওয়ার পর হামলা হয়েছে শরিক দলের পার্থীর গাড়িতে। আর একরণে অভিমানে বিএনপি থেকে পদত্যাগের হিরিক পড়ে।
সোমবার ১০ডিসেম্বর  পর্যন্ত মনিরামপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শহীদ ইকবাল হোসেনের হাতে তিন হাজার নেতাকর্মী পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন এক সাথে।উপজেলার ১৭ টি ইউনয়নের অধিকাংশ নেতাকর্মীরা পদত্যাগপত্রে সই করেছেন বলেও জানান তিনি। উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নের সবটিতে দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা পদত্যাগ করেন।

এ ব্যাপারে পৌর বিএনপির সভাপতি খাইরুল ইসলাম জানান,‘ অষ্টম ও নবম সংসদ নির্বাচনে ২০ দলীয় জোট থেকে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাসকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। যদিও মনিরামপুরে তার তেমন প্রভাব বা জনপ্রিয়তা নেই। আবার স্থানীয় জোটের সাথে তার সম্পর্ক ভালো না। ২০০১ সালে তিনি জয়লাভ করলেও ২০০৮ সালে তিনি হেরে যান। আর গত ১০ বছরে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের খোঁজখবর নেননি তিনি।’

জেলা যুবদলের সভাপতি এম তমাল আহমেদ জানান, মনিরামপুর উপজেলার সকল ইউনিয়ন ও পৌর শাখা এবং উপজেলা শাখা মিলে ১০ হাজারের মতো নেতাকর্মী আছেন।গতকাল পর্য ন্ত ৩ হাজার নেতাকর্মী এখন পর্যন্ত পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছে। বাকি সবাই স্বাক্ষর করেছেন এবং মঙ্গলবার নাগাদ হয়তো মনিরামপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যডভোকেট শহীদ ইকবাল হোসেনের হাতে জমা দেবেন এবং পদত্যাগ করবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/