• শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

কর্মহীন অসহায় রোজাদারদের ইফতার পৌঁছে দিচ্ছেন শ্রীশ্রী রমনা কালী মন্দির ও শ্রীমা আনন্দময়ী আশ্রম।

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৫ মে, ২০২০

করোনা ভাইরাসের সংকটময় পরিস্থিতিতে করোনা মোকাবেলায় আর্ত মানবতার সেবায় সনাতন ধর্মাবলম্বী এবার ভালোবাসার ইফতার ‘উপহার’ নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে শ্রীশ্রী রমনা কালী মন্দির ও আনন্দময়ী আশ্রম

কর্মহীন অসহায়দের সাহায্যে বিরল দৃষ্টান্ত রেখেছেন ঢাক শহরের অন্যতম সার্বজনীন মন্দির ও আনন্দময়ী আশ্রম পরিচালনা পরিষদ। তাদের ধর্ম সনাতন হলেও মুসলিম রোজাদারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করছেন তারা।
আজ শুক্রবার তারা নিজেরা ইফতার তৈরি শুরু করেন । তাদের তৈরি করা ওই ইফতার নিয়ে ছুটে যান ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায়।

সনাতন ধর্মাবলম্বী মানুষের এমন উদ্যোগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন অঙ্গনে প্রশংসিত হয়েছেন ।

এ বিষয়ে শ্রী শ্রী রমনা কালী মন্দির কমিটির সভাপতি শ্রী উৎপল সাহা বলেন, আজ ১০০০জনের মধ্যে এই ইফতার বিতরণ করছি। দুপুরের দিকে আমরা কয়েকজন সহযোগী এক সাথে রান্না করি। রান্না শেষে প্যাকেটিং করে বিকেল ৫টার দিকে বের হই বিতরণের জন্য। বিতরণে আমার সাথে মন্দির কমিটির কয়েকজন সহযোগিতা করে। প্রায় ১ ঘন্টার মধ্যে বিতরণ শেষ হয়ে যায়। এতে সবাই ইফতারের সময় তা গ্রহণ করতে পারে।

বিতরণ পুরো কাজ কিভাবে সম্পন্ন করেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্যাকেট করা হয়ে গেলে এখান কার কয়েকজন ভ্যানচালক তাদের ভ্যান নিয়ে আসেন। পরে সেটা নিয়ে নির্দিষ্ট এলাকা ধরে সেখানে বিতরণ করি। যাতে বেশি মানুষ একসঙ্গে জমায়েত না হয় সেজন্য ভ্যান দিয়ে ঘুরে ঘুরে বিতরণ করে থাকি।

কোথায় কোথায় বিতরণ করা হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে উৎপল সাহা বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, টি এস সি, শাহবাগ, হাইকোর্ট মোড়ে, দোয়েল চত্বর, পলাশী, ঢাকা মেডিকেল যেখানে অনেক রিকশা, ভ্যান ইত্যাদির পার্কিংয়ের জায়গায় ভাসমান মানুষদের মধ্যে বিতরণ করলাম। ১০০০ প্যাকেট ইফতার নিয়ে গেলেও কিছুটা ঘাটতিও পড়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, এই কার্যক্রমে গিয়ে অনেকের মুখে কিছুটা হাসি ফুটাতে পারছি তার জন্য মনের প্রশান্তি কাজ করে। এই কাজ করতে গিয়ে কিছুটা কম পরেই যাচ্ছে। খাবারের শেষ পর্যায়ে একজন রিকশাওয়ালা আসে, রিকশা চালালেও তিনি প্রতিবন্ধী (একটি হাত সমস্যা)। খাবার শেষ হয়ে যাওয়ায় তাকে খাবার দিতে পারিনি। বিষয়টা অত্যন্ত খারাপ লাগে পরে জানতে পারি যে উনি সেহরীও করেননি। পরে তাকে ইফতারের জন্য কিছু টাকা দিয়ে আসি।

তিনি বলেন, এর আগে আমরা অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করি। এ কর্মসূচী চলমান থাকবে।

এসমোয় উপস্থিত ছিলেন , সাধারন সম্পাদক শ্রী সজিব বিশ্বাস, সি: সহ-সভাপতি শ্রী বাবুল বিশ্বাস,সহ-সভাপতি প্রান কৃষ্ণ সাহা, নিত্য পূজা সম্পাদক গোকুল সাহা,যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক চৈতী রানী বিশ্বাস, যমুনা টিভি সাংবাদিক দেবাশীষ সরকার প্রমূখ,সহ-সভাপতি পান্না বিশ্বাস সহ অনেকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/