• বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৮:৩৩ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

ফেসবুকে ভাইরাল ছবিটি আইনমন্ত্রীর মায়ের জানাজার নয়

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২০ এপ্রিল, ২০২০

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর প্রয়াত অ্যাডভোকেট সিরাজুল হকের সহধর্মিণী ও বর্তমান আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের মা বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহানারা হকের জানাজা নামাজ নিয়ে ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ছবিকে বিভ্রান্তিকর ও মিথ্যা বলে উল্লেখ করছে আইন মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে আজ সোমবার আইন মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা ড. মো. রেজাউল করিম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়েছে। 

আইনমন্ত্রীর মায়ের জানাজার প্রকৃত ছবি

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর প্রয়াত অ্যাডভোকেট সিরাজুল হকের সহধর্মিণী ও বর্তমান আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের মা বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহানারা হক গত ১৮ এপ্রিল ভোর ৩টা ৪০ মিনিটে রাজধানীর একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। ঐদিন বাদ জোহর বনানীতে মরহুমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয় এবং বনানী কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। করোনা পরিস্থিতির কারণে লোক সমাগম পরিহার করতে পারিবারিকভাবে অত্যন্ত সীমিত পরিসরে জানাজার আয়োজন করা হয়। ফলে মরহুমের নিকট আত্মীয়-স্বজন এবং আইনমন্ত্রীকে সমবেদনা জানাতে আসা অল্প কিছু ব্যক্তি সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নামাজে জানাজায় অংশগ্রহণ করেন। সামাজিক দূরত্বকে নিশ্চিত করার জন্য নির্দিষ্ট দূরত্ব পরপর লাল বৃত্ত তৈরি করা হয় এবং জানাজায় অংশগ্রহণকারীরা ঐ লাল বৃত্তে দাড়াঁন।

মরহুমা বীর মুক্তিযোদ্ধা হওয়ায় তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। কিন্ত সেখানে কোনো ছামিয়ানা ছিল না।

কিন্তু সম্প্রতি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের বা অন্য কোনো জায়গার ব্যাপক জনসমাগমের জন্য আলোচিত একটি জানাজার ছবিকে আইনমন্ত্রীর মায়ের জানাজার ছবি হিসেবে ফেসবুকে প্রচার করে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। ফেসবুকে প্রচার করা ছবিটি যে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তার অন্যতম প্রমাণ হলো সেখানে গার্ড অব অনার প্রদানের স্থানে ছামিয়ানা ছিল। জানাজার স্থানে কোনো লালবৃত্ত ছিলো না এবং সেখানে আইনমন্ত্রীর মায়ের জানাজায় অংশ নেওয়া কাউকে দেখা যাচ্ছে না। তাছাড়া জানাজা অনুষ্ঠিত হওয়ার স্থানের প্রাকৃতিক দৃশ্যের সঙ্গেও মিল নেই। তাই এধরণের অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সকলকে বিনীত অনুরোধ করা হলো

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/