• শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
গৃহহীন অসহায় মমতাজকে টিম হাসিমুখের ঘর উপহার! বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে যুবলীগের বিক্ষোভ দেশজুড়ে দৃষ্টিনন্দন ইসলামি ভাস্কর্য রামগঞ্জে দল্টা বাঙ্গালী ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং নকল আওয়ামী লীগের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে আসল আওয়ামীলী লীগ’ বসুরহাট পৌরসভার জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ আবদুল কাদের মির্জা ‘তুরস্কের আঙ্কারায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে’ যুবলীগ সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার থানায় জিডি ভাস্কর্য বিরোধীতার আগে শিশু বলাৎকার বন্ধ করুন: ডা. জাফরুল্লাহ কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন

নড়াইলের সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত সেনা সদস্যের দাফন সম্পন্ন,

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২০

উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিবেদক নড়াইলঃ  নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নিজ বাড়িতে ঢাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত সেনা সদস্য এস এম প্রিন্স এর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শুক্রবার দুপুর ১টায় জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। তিনি উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের মো: জাফর শেখ এর ছেলে বাংলাদেশ সেনাবাহি*নীর সৈনিক পদে কর্মরত ছিলেন।উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিবেদক নড়াইল জানান, এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের সামনে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানায়, সকালে সাভার সেনানিবাস থেকে জাজিরায় যাওয়ার পথে সেনাবাহি*নী কনভয়ের ওই ৩ টনের ট্রাকটি দুর্ঘটনায় পড়ে। সোহরাওয়ার্দী হাসপতালের কাছে উল্টো পথে আসা এক সাইকেল আরোহীকে বাঁচাতে গেলে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনায় পতিত হয়। ওই ট্রাকে ২১ জন সেনাসদস্য ঢাকা সিএমএইচে চিকিৎসাধীন আছে বলে জানা যায়।

এ সময় নড়াইল ১ আসনের সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি, উপজেলা চেয়ারম্যান কৃষ্ণপদ ঘোষ, কালিয়া পৌর মেয়র ফকির মুশফিকুর রহমান লিটন, ভাইস চেয়ারম্যান মো: ইব্রাহিম শেখ, সালামাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান মো: শামিম আহম্মেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সেনা সদস্য প্রিন্সের মৃত্যুতে এলাকায় শোক বিরাজ করছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক শোকবার্তায় নড়াইল ১ আসনের সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি লেখেন, “যারা অন্যের জীবন বাঁচাতে নিজের জীবন উৎসর্গ করে, যারা দেশের জন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করে যায়। কে বলে তাকে মৃ*ত? সেটা কখনো মৃত্যু নয়।

শোকের পরে শোক!! করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ডাক্তারের পরে এবার আপনাদের সেবায় নিয়োজিত থেকে প্রাণ হা*রালেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। যা অত্যন্ত দুঃখজনক ও হৃদয়বিদারক ঘটনা।

আজ আপনাদের সচেতন করতেই তাদের রাস্তায় নেমে আসা। কেন ভাই তাদের এভাবে রাস্তায় নামা লাগবে আর কেনইবা তাদের এভাবে চলে যেতে হবে? আমরা কি পারি না নিজেরা সচেতন হয়ে থাকতে?

আজ এই রোড এক্সিডেন্ট এর মৃত্যুতে আমি নিজে ব্যক্তিগত ভাবে অনেক টা দুঃখ পেয়েছি, মর্মাহত হয়েছি। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহী রাজিউন)। রাজু নামে একটা ছেলে যে সেনাবাহিনীতে নিয়োজিত ছিলো। আমার কালিয়াতেই বাড়ি। জানি না তার পরিবার কে কি বলে সমবেদনা জানাব। শুধু এতোটুকু বলবো যা অনিবার্য তা গ্রহণ করাই শ্রেয়। পরপারে ভালো থেকো। গভীর শোক শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করছি এবং পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।”উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিবেদক নড়াইল।   

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

http://digitalbangladesh.news/